ব্রেকিং নিউজ
Home » খেলা » মাহমুদউল্লাহর বিরুদ্ধে দুই ম্যাচের দুটোই হার মুশফিকের

মাহমুদউল্লাহর বিরুদ্ধে দুই ম্যাচের দুটোই হার মুশফিকের

মাহমুদউল্লাহর বিরুদ্ধে দুই মুখোমুখিতে দুটোই হার মুশফিকের
‘ভায়রা’ মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের বিরুদ্ধে দুই মুখোমুখিতে দুটোই হার ছোট ‘ভায়রা’ মুশফিকুর রহিমের! দুটোতোই অনায়েসে জিতে নিল মাহমুদউল্লাহর খুলনা টাইটান্স। চট্টগ্রামে প্রথম মুখোমুখিতে বরিশাল বুলস হেরেছিল ২২ রানে।

দ্বিতীয় ম্যাচে ঢাকায় খুলনা টাইটান্সের বিরুদ্ধে বরিশাল হারল ৬ উইকেটে। মিরপুর শের-ই-বাংলায় আগে ব্যাটিং করতে নেমে ৫ উইকেটে ১১৯ রান সংগ্রহ করে বরিশাল বুলস। জবাবে ৮ বল ও ৬ উইকেট হাতে রেখে জয়ের বন্দরে নোঙর ফেলে খুলনা টাইটান্স। ব্যাটিং কিংবা বোলিং দুই বিভাগেই বরিশালের থেকে ম্যাচে এগিয়ে ছিল খুলনা টাইটান্স।

নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে বরিশাল বুলসকে ১১৯ রানে আটকে রেখে জয় পেতে বেগ পেতে হয়নি খুলনা টাইটান্সকে। এক ম্যাচ পর ফিরে খুলনা টাইটান্সকে জয়ের স্বাদ দিয়েছেন শুভাগত হোম।পাশাপাশি অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ অধিনায়কোচিত ইনিংস খেলে দলকে জিতিয়ে মাঠ ছেড়েছেন।

মাহমুদউল্লাহর বিরুদ্ধে দুই মুখোমুখিতে দুটোই হার মুশফিকের2

৪৯ রানে ৩ উইকেট হারানোর পর জুটি বাঁধেন শুভাগত হোম এবং মাহমুদউল্লাহ। দলকে ১০৬ রান পর্যন্ত টেনে নেন দুজন। শুভাগত হোম ৩৪ বলে ৫ চার ও ১ ছক্কায় ৪০ রান করে রুম্মান রাইসের অসাধারণ এক ইয়র্কারে সাজঘরে ফিরেন।

অন্যদিকে মাহমুদউল্লাহ ৩৫ বলে ৩৭ রানে অপরাজিত থেকে জয় নিশ্চিত করেন। পাকিস্তানের বাঁহাতি পেসার শুভাগত হোমকে আউটের আগে রিকি ওয়েসেলসের উইকেট নেন।এর আগে ব্যাটিং ব্যর্থতায় বড় স্কোর গড়তে পারেনি বরিশাল বুলস। ব্যাট হাতে সর্বোচ্চ ৩১ রান করেন মুশফিকুর রহিম।

২৬ বলে ৩ বাউন্ডারিতে ৩১ রানের ইনিংস খেলে রান আউটে কাটা পড়ে তার ইনিংস। এছাড়া শাহরিয়ার নাফিস ২৩ এবং এনামুল হক (২) ২০ রান করেন। বল হাতে খুলনার হয়ে ১টি করে উইকেট নেন জুনায়েদ খান, শফিউল ইসলাম এবং মোশাররফ হোসেন রুবেল।

এ জয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে পৌঁছাল খুলনা টাইটান্স। অষ্টম ম্যাচে এটি তাদের ষষ্ঠ জয়। মোট পয়েন্ট ১২। অন্যদিকে অষ্টম ম্যাচে এটি মুশফিকদের পঞ্চম পরাজয়।

About admin1

Leave a Reply