বেগম খালেদা জিয়া নির্দোষ দাবি করেছেন নিজেকে

Bangladeshi Prime Minister and president of Bangladesh's Nationalist Party (BNP), Begum Khaleda Zia, attends a mass rally to mark the 28th founding anniversary of the party in Dhaka on Sunday, 03 September 2006. The premier led tens of thousands of her followers in the street march on Sunday, urging supporters to vote for BNP in next January's general elections. Foto: EPA/ABIR ABDULLAH +++(c) dpa - Report+++

রাজনীতি ডেস্ক : দুদকের করা জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় আত্মপক্ষ সমর্থনে নিজেকে নির্দোষ দাবি করলেন বিএনপি চেয়ারপারন বেগম খালেদা জিয়া। বৃহস্পতিবার বকশীবাজারে আলিয়া মাদ্রাসা মাঠের ঢাকার তৃতীয় বিশেষ জজ আবু আহমেদ জমাদারের আদালতে আত্মপক্ষ সমর্থন করেন বিএনপি নেত্রী। তখন তিনি আত্মপক্ষ সমর্থনে আংশিক বক্তব্য উপস্থাপন করে সময় আবেদন করলে আদালত সেটা মঞ্জুর করেন। পরবর্তী শুনানি ৮ ডিসেম্বর ঠিক করা হয়।

তারআগে দুপুর সাড়ে ১২টায় আত্মপক্ষ সমর্থন করতে আদালতে হাজির হন তিনি। বেগম জিয়ার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ এবং ৩২ সাক্ষীর জবানবন্দি বিচারক পড়ে শুনান এবং সাক্ষীর সাক্ষ্য এবং অভিযোগের বিষয়ে জানতে চান। তারপর নিজেকে নির্দাষ দাবি করে ন্যায়বিচারের প্রত্যাশা করেন সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী।

গেলো ৭ এপ্রিল মামলার ২ আসামি বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) নৌ-নিরাপত্তা এবং ট্রাফিক বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক জিয়াউল ইসলাম মুন্না এবং ঢাকার সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার একান্ত সচিব মনিরুল ইসলাম খান আত্মপক্ষ সমর্থনে নিজেদের নির্দোষ দাবি করে ন্যায়বিচারের প্রত্যাশা করেন।

মামলার বিবরণীতে জানা গেছে, জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টের নামে অবৈধভাবে ৩ কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা লেনদেনের অভিযোগ এনে খালেদা জিয়াসহ চারজনের বিরুদ্ধে ২০১০ সালের ৮ আগস্ট তেজগাঁও থানায় মামলা করে দুদক। ২০১২ সালের ১৬ জানুয়ারি মামলা তদন্ত কর্মকর্তা এবং দুদকের উপ-পরিচালক হারুন অর রশিদ খালেদাসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেন। ২০১৪ সালের ১৯ মার্চ  আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন ঢাকার তৃতীয় বিশেষ জজ আদালতের বিচারক বাসুবেদ রায়।

মামলার অন্য আসামিরা হলেন, খালেদা জিয়ার সাবেক রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরী (পলাতক), হারিছের তখনকার সহকারি একান্ত সচিব ও বিআইডব্লিউটিএ’র নৌ-নিরাপত্তা এবং ট্রাফিক বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক জিয়াউল ইসলাম মুন্না ও ঢাকার সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার একান্ত সচিব মনিরুল ইসলাম খান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *