চাঁদার দাবিতে আবারো দীঘিনালা সড়কে প্রাণ-আরএফএল কোম্পানির ট্রাক ভাংচুর

35খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি  :  আবারো চাঁদার দাবিতে প্রাণ আরএফএল কোম্পানির পন্য পরিবহণকারী মিনি ট্রাক ভাংচুর করেছে উপজাতী সন্ত্রাসীরা। এ সময় গাড়ির চালক ওবায়দুল ও চালকের সহকারী মো. তাহিরকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। বৃহস্পতিবার বিকেলে খাগড়াছড়ি-দীঘিনালা সড়কের চার মাইল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এর আগে  শনিবার দুপুরে একই এলাকায় পাঁচটি বিআরটিসি ট্রাকের গতিরোধ করে চাঁদা দাবী করে উপজাতী সন্ত্রাসীরা। চাঁদা দিতে অপারগতা প্রকাশ করায় দুটি ট্রাক ভাংচুর করে। ওই ঘটনায় খাগড়াছড়ি সদর থানায় মামলাও দায়ের করে চালক।

ঘটনার বর্ণনা দিয়ে ট্রাকের চালক মো. ওবায়দুল জানান, সকালে খাগড়াছড়ি থেকে আরএফএল কোম্পানির পণ্য নিয়ে দীঘিনালা যাওয়ার পথে চার মাইল এলাকায় কয়েকজন উপজাতী যুবক গাড়ি থামানোর সংকেত দেয়। সংকেত  উপেক্ষা করে দীঘিনালা চলে গেলে বিকেলে ফেরার পথে একই স্থানে গাছের গুড়ি ফেলে রাস্তা অবরোধ করে। এ সময় গাড়ি থামাতেই অস্ত্র হাতে দুপাশ দুইজন দাঁড়িয়ে  গাড়ি থেকে নামতে বলে। সামনে থাকা কয়েকজন লাঠি দিয়ে এলোপাথারি গাড়ির সামনের গ্লাসে আঘাত করে  গাড়ি ভাংচুর করে পরে গাড়ির চাবি নিয়ে যায় তারা।

আরএফএল গ্রুপের পাবর্ত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলের বিক্রয় ও বিপণন বিভাগের ব্যবস্থাপক মো. মাঈন উদ্দিন জানান, অর্ণব চাকমা ও শুভ চাকমা নামে ইউপিডিএফ সদস্য খাগড়াছড়ি জেলার দীঘিনালা ও পানছড়ি উপজেলায় আর এফ এল পণ্য বিক্রয় ও বিপণন  করার জন্য ২০ লাখ টাকা চাঁদা দাবী করে। এ নিয়ে কোন সুরাহা না হওয়ায় দীর্ঘ তিন মাস এই দুই উপজেলায় পণ্য সরবরাহ বন্ধ রাখে আরএফএল। পরে চলতি মাসে পণ্য সরবরাহ শুরু করা হয়। চাঁদা না দেয়ায় তারা গাড়ি ভাংচুর  চালক ও সহকারীকে মারধর করেছে। এ ঘটনায় পাহাড়ি আঞ্চলিক সংগঠন ইউনাইটেড পিপলস্ ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ)’র বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করবেন বলেও জানান তিনি।

খাগড়াছড়ি সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তারেক মুহাম্মদ আব্দুল হান্নান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ঘটনাস্থল পরিদর্শনে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। ‘লিখিত অভিযোগ পেলে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *