ফেনীতে চাউল বোঝাই ট্টাক ছিনতাই ॥ ট্টাক আটক, চাউল জব্দ

নিজস্ব প্রতিবেদক: ভারত থেকে অকশনে চাউল ক্রয় করে ব্যবসায়ী মো: জাহাঙ্গীর আলম নিয়ে যাচ্ছিল ভারত-বাংলাদেশের হিলি বর্ডার দিয়ে। গন্তব্যস্থল সাতকানিয়া জেলার লোহাগাড়া।  তার মধ্যে গন্তব্যস্থলে চলতি পথে ১৭ জানুয়ারী ফেনীতেই ছিনতাই হয় ২৩ টন (৪৬০ বস্তা) চাউল বোঝাই ট্টাকটি।

অবশেষে ফেনী থেকে চাউল বোঝাই ছিনতাইকৃত ট্টাক আটক হয় ফেনীতে। তবে চাউল জব্দ করা হয় খাগড়াছড়ি জেলার গুইমারার ২ চাউল ব্যবসায়ীর গুদাম থেকে। চাউল ব্যবসায়ীরা হচ্ছে- তোফায়েল আহম্মদ ও হাজী মমিন সওদারগর এর ছেলে তারেক। তবে এ বিষয়ে গুইমারার এখন পর্যন্ত মূখ খুলছে না জড়িত ব্যবসায়ীরা।

এ ঘটনায় গুইমারা থানার সহযোগিতায় ফেনী সদর থানার পুলিশ ব্যবসায়ীর গুদাম থেকে ৪৫৯ বস্তা চাউল ক্রয়ের কথা স্বীকার করে। পরে গুদাম থেকে চাউল জব্দ করে পুলিশ চাউল ব্যবসায়ী তারেক তোফায়েল,কামালকে আটক করে পুলিশ। চট্টগ্রামের চাউল ব্যবসায়ী মোঃ জাহাঙ্গীর আলম ছিনতাইয়ের ঘটনায় ব্যবসায়ী বাদী হয়ে ফেনী সদর থানায় একটি মামলা করে। যার মামলা নং- ৪১, ১৭ জানুয়ারী ২০১৭।

Guimara (4)জানা যায়, অকশনে চাউল ক্রয় করে হিলি বর্ডার থেকে ট্রান্সপোর্টের মাধ্যমে চট্টগ্রাম লোহাগাড়া নিয়ে আসার পথে এই ছিনতাইয়ের  ঘটনা ঘটে। পরে সন্ত্রাসী চক্রটি ফেনী থেকে দুইটি ট্রাকে করে গুইমারার চাউল ব্যবসায়ী তোফায়েল নিকট বিক্রয় করে। গত ১৭ জানুয়ারী ২০১৭ দিনাজপুর বাংলা হিলি বর্ডার থেকে লোহাগাড়া নিয়ে যাওয়ার পথে ফেনী থেকে একটি সন্ত্রাসীচক্র ছিনতাই করে নিয়ে যায়। ১৮ জানুয়ারী গুইমারায় দু’ব্যবসায়ীর কাছে চক্রটি চাউল বিক্রয় করে বলে জানা যায়।

ফেনীতে ছিনতাইকারী চক্র চাউলবাহী ট্টাক ড্রাইভার ও হেলপারকে আটক করে বলে জানা যায়। পরে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে পুলিশ গুইমারায় অভিযান চালিয়ে জড়িত সন্দেহে চাউল ব্যবসায়ী চাউল ব্যবসায়ী, তোফায়েল আহম্মদ ও হাজী মমিন সওদারগর এর ছেলে তারেক ও কামালকে পুলিশ আটক করে।

পরে এ বিষয়ে ফেনী সদর থানার এস আই নজরুল ইসলাম জানান, চাউল বোঝাই ট্টাক ছিনতায়ের ঘটনায় ফেনী সদর থানায় একটি মামলা হয়েছে। পরে ফেনীতে ট্টাকটি আটক করে পরে জিজ্ঞাসাবাদে চক্রটি গুইমারা চাউলগুলো বিক্রয়ের বিষয়ে তথ্য পাওয়া যায়। পরে চাউল ক্রয় ও জড়িত থাকার অভিযোগে গুইমারা ৩ জনকে আটক করা হয় বলে তিনি জানান।

ফেনী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) মো: শহীদুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, তদন্ত চলছে। এ নিয়ে মামলা হয়েছে। জড়িত থাকার অভিযোগ নিশ্চিত হলে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে তিনি জানান। জব্দ করা চাউলগুলো জড়িত সন্দেহে আটক চাউল ব্যবসায়ী তারেক ও তোফায়েলের গুদাম থেকে উদ্ধার করে পুলিশ হেফাজতে রেখেছে বলে জানা যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *