মুখ খুললেন অপু বিশ্বাস!

হঠাৎ ফেসবুক মেসেঞ্জারে একটি ছবি ভেসে উঠল। পর্দায় তাঁর ছবি দেখে কিছুটা চমকে উঠি। মেসেঞ্জারে ভয়েস কল এসেছে। কল ধরতেই ওপাশ থেকে চিরচেনা হাসি। হাসতে হাসতে স্বতঃস্ফূর্ত জিজ্ঞাসা, ‘কেমন আছেন? অবাক লাগছে নাকি?’ প্রায় ১০ মাস ধরে যাঁকে দর্শক, সাংবাদিক, প্রযোজক, পরিচালকেরা খুঁজে ফিরছেন, তিনিই নিজ থেকে ফোন করেছেন! ঢালিউড অভিনেত্রী অপু বিশ্বাস গত মঙ্গলবার সন্ধ্যার পরপর সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে ফেসবুক মেসেঞ্জারে প্রথম আলোর সঙ্গে টানা আধা ঘণ্টা কথা বলেন

অপু বিশ্বাস ছবি: প্রথম আলোকেমন আছেন?
সবার ভালোবাসা আর দোয়ায় ভালো আছি।
এখন কোথা থেকে কথা বলছেন?
তা তো বলা যাবে না। ভারত থেকে হতে পারে, ঢাকা থেকেও হতে পারে! (হাসি) থাক না একটু রহস্য।
রহস্য কাটিয়ে কি বলবেন আপনার অবস্থানের কথা?
ঢাকাতেই আছি।
কাউকে না বলে এভাবে হঠাৎ আড়ালে চলে যাওয়ার কারণ কী?
কিছু পারিবারিক ঝামেলা ছিল। এ কারণেই সবার কাছ থেকে দূরে ছিলাম। আড়ালে না গেলে এসব ঝামেলা নিয়ে চারদিকে বিভ্রান্তি আর গুজব আরও বেশি ছড়াত। আমার ভক্ত, শুভাকাঙ্ক্ষীরা আরও বেশি কষ্ট পেতেন। আমার দুঃখ, কষ্ট ও বেদনার কথা ভক্তদের সঙ্গে ভাগাভাগি করতে চাই না। শুধুই সুখ আর আনন্দগুলোই ভাগাভাগি করতে চাই।
এখন ফিরে আসার কারণ কী?
মনে করেছি এখন আমার ফিরে আসা দরকার, তাই। তা ছাড়া এখন আমার দুঃখ-কষ্টের দিন ফুরিয়েছে।
ভালো দিন কেমন করে ফিরে এল, জানানো যাবে?
না, এখনই সব বলতে চাই না। সামনাসামনি বলার জন্য কিছু কথা তো রাখা দরকার! (হাসি)
গুঞ্জন ছড়িয়েছিল, শাকিব খানের সঙ্গে আপনার বিয়ে হয়েছে। স্ত্রীর অধিকার না পাওয়ার কারণেই আপনি অভিমান করে চলে গেছেন?
এই উত্তর এখন দেব না। আমার ও শাকিব খানের সামনে যখন এই প্রশ্ন করবেন, ঠিক তখন এর উত্তর দেব আমি।
আপনার কারণে অনেকগুলো ছবির প্রযোজক ও পরিচালক সমস্যার মধ্যে পড়েছেন। তা-ই নয় কি?
সত্যি কথা বলতে কি, সমস্যা ছিল বলেই আমি সবকিছু থেকে দূরে সরে গিয়েছিলাম। আমি জানি আমার জন্য অনেক পরিচালক-প্রযোজক মানসিক ও আর্থিকভাবে কষ্ট ভোগ করেছেন। সঠিক সময়ে কাজ শেষ না হওয়ায় লোকসানও গুনতে হয়েছে তাঁদের। এর জন্য আমি সবার কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করছি।
যা-ই হোক, কাজে ফিরছেন কবে?
খুব তাড়াতাড়ি ফিরব।
সেটা কবে?
আগামী মাসের প্রথমেই হতে পারে।
কোন ছবির শুটিংয়ে অংশ নেবেন, নতুন নাকি পুরোনো?
আমি না থাকার কারণে রাজনীতি, মাই ডার্লিং, পাঙ্কু জামাই, মা, লাভ ২০১৭—এই ছবিগুলোর কাজ আটকে আছে। প্রথমে এগুলোর কাজ শেষ করব। এরপর নতুন ছবির কাজ হাতে নেব। এই ছবিগুলোর কাজের জন্য যেদিন প্রথম এফডিসিতে আসব, সেদিন উৎসব হবে!
আপনার অনুপস্থিতিতে শাকিব খানের সঙ্গে জুটি বেঁধে দুটি ছবিতে কাজ করেছেন বুবলী। এখন ‘অহংকার’ নামে আরেকটি ছবির শুটিং করছেন। বিষয়টিকে কীভাবে দেখছেন?
অবশ্যই ইতিবাচকভাবে দেখছি। এই শিল্পী–সংকটের সময় নতুন অভিনয়শিল্পীর দরকার ছিল। তবে শিল্পচর্চা যাঁরা করেন, এমন শিল্পী এলে ভালো। আমি যেমন নৃত্যশিল্পী থেকে অভিনয়শিল্পী হয়েছি। নৃত্য অভিনয়ের একটা অংশ। বুবলী সংবাদপাঠিকা থেকে নায়িকা হয়েছেন। সেটা শিল্পচর্চার মধ্যে পড়ে কি না, আমার জানা নেই।
সাক্ষাৎকার: শফিক আল মামুন ।।প্রথম আলো সূত্র।।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *