খাগড়াছড়ির পানছড়ি উপজেলার শনটিলায় অগ্নিকান্ডের ঘটনায় পাল্টাপাল্টি মামলা

স্টাফ রিপোর্টার, খাগড়াছড়ি:  খাগড়াছড়ির পানছড়ি উপজেলার ৩নং পানছড়ি ইউপির শনটিলা গ্রামে দু’গ্রুপের সংঘর্ষ পরবর্তী অগ্নিকান্ডের ঘটনায় পাল্টাপাল্টি মামলা হয়েছে।

গত রবিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে শনটিলা গ্রামের আহাদের টিলা নামক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনায় দু’পক্ষের ৫জন আহত হয়। আহত শনটিলা গ্রামের জামাল হোসেনের ছেলে সুমন (২০) ও  আবুল হোসেনের ছেলে বেলাল (১৮), আবদুল জলিলের ছেলে আবদুল আহাদ (৪৫), আবদুল আহাদের স্ত্রী রেনু বিবি ও আহাদের মেয়ে আমেনাকে কে আহতবস্থায় পানছড়ি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসা হয়। আবদুল আহাদ ও রেনু বিবি বর্তমানে খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে চিকিসাধীন রয়েছে।

এলাকার আবজল মিয়া (৪৮) জানায়, শনটিলা গ্রামের জারু মিয়ার স্ত্রী শাহানা হত্যার পর জারু মিয়ার জায়গার কিছু কাগজ পত্রাদি আহাদের জিম্মায় রাখা হয়। এসব কাগজ পত্রাদির জের ধরে এ ঘটনা ঘটেছে। হোসেন মেম্বার, বেলাল ও সমুনসহ কয়েকজন মিলে মারধর ও অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটায়। এ ব্যাপারে মো: আবদুল আহাদ বাদী হয়ে ৮জনকে আসামী করে থানায় একটি মামলা দায়ের করে। পানছড়ি থানার মামলা নং ০৩।

এদিকে শনটিলা গ্রামের হোসেন মেম্বার জানায়, ঘটনার দিন আহাদ ও তার বৌ ছেলে নিয়ে আমাদের উপর অতর্কিত ঝাপিয়ে পড়ে মারধর করে। পরবর্তীতে নিজেরাই নিজেদের ঘরে আগুন দেয়। এ ব্যাপারে হোসেন মেম্বারের ছেলে মো: বেলাল ৭ জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করে। পানছড়ি থানার মামলা নং-০১।

পানছড়ি থানা অফিসার ইনচার্জ মো: আ: জব্বার  জানান, ঘটনার সাথে সাথে পুলিশের একটি দলসহ ঘটনাস্থলে পৌঁছে দেখি আহাদের দুটি ঘর আগুনে জ্বলছে। পরবর্তীতে দু’পক্ষই থানায় মামলা দায়ের করে। সাব-ইন্সপেক্টর মো: ইউনুস মিয়াকে মামলা তদন্তের ভার দেয়া হয়েছে।

তদন্তকারী কর্মকর্তা মো: ইউসুন মিয়া জানান, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *