গুইমারায় সাংবাদিক নির্যাতনের ঘটনায় জড়িতদের শাস্তি দাবী

Masud Ranar Upor Hamlaনিজেস্ব প্রতিবেদক : খাগড়াছড়ির গুইমারা উপজেলা পরিষদের নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতার অংশ হিসেবে এবার হামলা আর মারধরের শিকার হলো দৈনিক জনতার গুইমারা উপজেলা প্রতিনিধি মাসুদ রানা। আ’লীগের প্রার্থী পরাজয়ের পর সোমবার রাতে দুর্বৃত্তরা জালিয়াপাড়া অফিস ভাংচুর করে। তবে এ ঘটনার জন্য আওয়ামীলীকে দায়ী করেছে বিএনপি।
পরদিন ৭মার্চ পালন কালে বিক্ষোভ মিছিল বের করলে মাসুদ পেশাগত দায়িত্ব পালনের জন্য ছবি তুলতে গেলে তাকে মারধর করে সরকার দলীয় ছাত্রলীগ-যুবলীগের মিছিলে থাকা নেতাকর্মীরা। এসময় হামলা চালানো হয় বিএনপি নেতাকর্মীর ব্যবসা প্রতিষ্ঠানেও। হামলা চালানোর চেষ্টা করা হয় উপজেলা বিএনপির কার্যালয়েও। পরে তা পুলিশী বাধায় রক্ষা পায়।
অভিযোগ রয়েছে সাংবাদিক মাসুদ রানাকে পুলিশের উপস্থিতেত মারধর হামলা চালানো হয়। তবে বিষয়টি অস্বীকার করেন গুইমারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: জুবায়েরুল হক।
স্থানীয় সূত্রে জানায়, গুইমারা উপজেলার আ’লীগ কার্যালয় থেকে আ’লীগের মিছিলটি বাজার ঘুরে মহাসড়কে পুলিশ বক্সের সামনে আসলে দৈনিক জনতার গুইমারা উপজেলা প্রতিনিধি মোঃ মাসুদ রানা মিছিলটির ছবি তুলতে গেলে তার উপর হামলা চালায় সরকার দলীয় ছাত্রলীগ-যুবলীগ নেতাকর্মীরা।
এসময় নাজমা হোটেলের সামনে ধাওয়া খেয়ে সে হোটেলে আশ্রয় নিলে তারা সেখানে ঢুকে তাকে মারধরে করে। সে এ ঘটনায় মাথায় আঘাত প্রাপ্ত হয়। এছাড়াও সোমবার রাতে গুইমারা উপজেলার জালিয়াপাড়া নামক স্থানের বিএনপির অফিসটি ভাংচুর ও মালামাল লুটের ঘটনা ঘটে।
দিনে দুপুরে পুলিশের উপস্থিতে সাংবাদিকের উপর নেক্কারজনক হামলার ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছে স্থানীয় এলাকাবাসী ও পেশাজীবি সংবাদকর্মীরা। স্থানীয় সাংবাদিকরা এ ঘটনার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহন না করলে কঠোর আন্দোলনের হুশিয়ারী জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *