পানছড়িতে সংঘর্ষের ঘটনায় স্ত্রী খোদেজা’র মৃত্যু

panchari pic 01নিজেস্ব প্রতিবেদক,পানছড়ি: খাগড়াছড়ির পানছড়ি উপজেলার ওমরপুর গ্রামে ভূমির সীমানা বিরোধের জের ধরে সংঘর্ষে আহত স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে গুরুত্বর আহত চিকিৎসাধীন খোদেজা বেগম (৪৩) মারা যায় বলে জানা গেছে। রবিবার স্ত্রী চট্রগ্রাম হাসপাতালে   তবে স্বামী কাজিম উদ্দিন (৫৫) আশংকামুক্ত বলে জানা গেছে।

গত শনিবার ওমরপুর গ্রামের মৃত আঃ রাজ্জাকের ছেলে কাজিম উদ্দিন (৫৫) ও তার স্ত্রী খোদেজা বেগম (৪৩) এর সাথে ওমরপুর  গ্রামের আঃ রহিমের ছেলে বখাটে মোঃ আলম ও আলমাসের সাথে কাজিম উদ্দিনের সীমানা নিয়ে দীর্ঘদিনের বিরোধ চলছিল।

এ নিয়ে এলাকার সাবেক ইউপি সদস্য মোঃ হাবিবুর রহমান সীমানা নির্ধারণ করে বিষয়টি মিমাংশা করে দেয়। কিন্তু বখাটে মোঃ আলম ও আলসাম তা মেনে নিতে পারে নি। তাই শনিবার সকালের দিকে আলম, আলসাম ও তাদের মামা আবুল কাসেম পরিকল্পিতভাবে সীমানা পিলার তুলে ফেলার চেষ্টা চালায়।

এ সময় কাজিম উদ্দিন বাঁধা দিতে গেলে অতর্কিতভাবে তাদের উপর হামলা চাালায়। এতে কাজিম উদ্দিন ও তার স্ত্রী খোদেজার মাথা ফেটে যায়। আহতবস্থায় তাদের পানছড়ি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক কাজিম উদ্দিনের মাথায় ৮টি ও খোদেজা বেগম এর মাথায় ৬টি সেলাই দেয়। পরে আহতদের অবস্থা অবনতি ঘটলে খাগড়াছড়ি হাসপাতালে প্রেরণ করে।

সেখানে খোদেজা বেগমের অবস্থা আশংখ্যা জনক হওয়ায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ রবিবার দুপুর ২টার দিকে তার মৃতে্যু হয়। এ ব্যাপারে কাজিম উদ্দিনের ছেলে মোঃ খাইরুল পানছড়ি থানায় একটি অভিযোগ দাখিল করে।

এ ব্যপারে কথা বলার জন্য পানছড়ি থানা অফিসার্স ইনচার্জ এসআই মোঃ ইয়াছিন’র বলেন, থানায় মারামারির অভিযোগ দাখিল করা হয়েছে। সরকারি কাজে বাহিরে থাকার কারণে তাৎক্ষনিক মামলা নাম্বার দিতে পারেনী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *