গুইমারায় পাহাড়ী ছাত্র পরিষদের হামলায় বাঙ্গালী শিক্ষার্থী আহত: উত্তেজনা

মাসুদ রানা,নিজস্ব প্রতিবেদক :: খাগড়াছড়ি জেলার গুইমারা উপজেলা সদর মডেল স্কুলে সোমবার সকালে ক্লাশ চলাকালীন সময়ে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বাঙ্গালী ছাত্রদের উপর হামলা চালিয়েছে পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ (পিসিপি)র ছাত্ররা। হামলাকারীদের অতর্কিত ইটের আগাতে মাথা ফেটে যায় সাখাওয়াত হোসেন রিজবী নামে এক ছাত্রের। আহত রিজবীকে গুইমারা সিএমএসে ভর্তি করা হয়।

জানাযায়, গত কাল রবিবার স্কুল চলাকালীন সময়ে গুইমারা খাদ্য গুদাম সংলগ্ন উগ্য মারমার মেয়ের ছেমেলী মারমা নামে নবম শ্রেণীর এক ছাত্রীর সাথে একই স্কুলের ছাত্র মুন্নার কথা বলাকে কেন্দ্র করে, প্রেম করছে সন্দেহে পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের ছাত্ররা তাকে ও তার বন্ধুকে মারধর করে। পরে মুন্না ও তার বন্ধু বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে বিষয়টি জানিয়ে বিচার দাবী করে। প্রধান শিক্ষক বিষয়টি তদন্ত করে দেখবেন বলে আশ্বাস দেন।

এ ঘটনার রেশ ধরে সোমবার পিসিপির মানিকছড়ি কলেজ শাখার একটি দল আগে থেকে গুইমারা মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ে অবস্থান করে। স্কুল ছাত্র সাখাওয়াত হোসেন রিজবী সকাল ৯টায় স্কুলের ক্লাস রুমে প্রবেশ করে টেবিলে বই খাতা রাখতেই বাঙ্গালী সেটেলারের বাচ্চা বলে পিচন থেকে ইট দিয়ে আঘাত করে মাথা ফাটিয়ে দেওয়া হয়।

বিষয়টি নিয়ে তাৎক্ষনিক বিদ্যালয়ে ছড়িয়ে পড়লে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়। এক পর্যায়ে গুইমারা উপজেলা ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ এবং স্থানীয় লোকজন বিদ্যালয়ে প্রবেশ করতে গেলে পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের ছাত্ররা তাদের আক্রমন করে লাঠি-সোঠা নিয়ে ধাওয়া করে এবং হামলা চালায়। এতে স্থানীয় ৪ ব্যাক্তি আহত বলে জানা যায়।

খবর পেয়ে সিন্দুকছড়ি জোন ও গুইমারা সাব জোনের একটি সেনা টহল দল ও গুইমারা থানার পুলিশের সদস্যরা ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। এ বিষয় নিয়ে বিকালে গুইমারা মডেল বিদ্যালয়ে স্থানীয় প্রশাসন,অভিভাবক ছাত্রদের নিয়ে একটি জরুরী সভার আয়োজন করে। স্কুল কতৃপক্ষ বিষয়টি নিশ্চিত করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *