ক্রাইম নিউজ চট্টগ্রাম পার্বত্য চট্টগ্রাম ব্রেকিং নিউজ রাজনীতি

ফের জাহেদুল আলম সমর্থিতকর্মীকে মারধর: টাকা ও মোবাইল ছিনতাই

নিজস্ব প্রতিবেদক,খাগড়াছড়ি:: খাগড়াছড়ির জেলা সদরের হরিনাথপাড়ায় ফের জাহেদুল আলম সমর্থিত এক কর্মীকে মারধরের ঘটনা ঘটেছে। বর্তমানে আহত সুমন (২৬) খাগড়াছড়ি আধুনিক সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। সে স্থানীয় এপিবিএন এলাকার মো: হানিফের ছেলে। সে পেশায় একজন টমটম চালক।

জানা যায়, রবিবার বিকেলে হরিনাথপাড়ায় এক ব্যাক্তি টমটম ভাড়া নিয়ে যায়। এ সময় হরিনাথপাড়ার এমপি কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা সমর্থিত গ্রুপের আরিফ,মতি,রাসেল,সুমন,রাকিবসহ আরো ৫/৬ জন তাকে মসজিদ এর পাশ ধরে নিয়ে গিয়ে লাঠি সোটা ও দেশিয় অস্ত্র দিয়ে এলোপাথাড়ি মারধর করে। এ সময় স্থানীয় তাকে উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে সন্ধ্যায় হাসপাতাল ভর্তি করে। আহত সুমন জানান, ভাড়া নিয়ে হরিনাথপাড়া যাওয়ার পর হামলাকারীরা আমাকে জাহেদুল আলম গ্রুপের লোক বলে অর্তকিত হামলা চালায় এবং লাঠি-সোঠা ও দেশিয় অস্ত্র নিয়ে ঝাপিয়ে পড়ে বেদড়ক মারধর করে পকেটে থাকা ৬শ টাকা ও মোবাইল ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

এ ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামীলীগের শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক দিদারুল আলম দিদার বলেন, সম্প্রতি এ হামলাকারীরাই হরিনাথপাড়ায় জাহেদুল আলমকে সমর্থন করায় বেশ কয়েকটি বাড়ীতে হামলাও সম্প্রতি সংঘর্ষের ঘটনার প্রধান আসামী। এ ঘটনায় চিহিৃত বিশৃঙ্খলাকারীদের আটক না করায় একের পর এক হামলা, মারধর ও সাধারণ মানুষকে রাস্তায় ধরে বেধড়ক মারধর ছিনতাই করতে সাহস পাচ্ছে। খাগড়াছড়ি সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) তারেক মো: আব্দুল হান্নান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন। বিষয়টি শুনেছি। ঘটনার বিষয়ে খোজ খবর নেওয়া হচ্ছে।

প্রসঙ্গত: বিগত পৌর নির্বাচনের পর থেকে খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও বর্তমান সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র ত্রিপুরা ও সাধারণ সম্পাদক জাহেদুল আলম দু ভাগে বিভক্ত হয়। এরপর থেকে রাজনৈতিক প্রতিহিংসার জের ধরে একের পর এক পক্ষে-বিপক্ষে হামলা-মামলার ঘটনা চলে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় গত ৩১ অক্টোবরও দু’গ্রুপের সংঘর্ষে রণক্ষেত্রে পরিণত হয় খাগড়াছড়ি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *