আলোচিত বাংলাদেশ চট্টগ্রাম পার্বত্য চট্টগ্রাম ব্রেকিং নিউজ রাজনীতি

খাগড়াছড়িতে নজরুলকে বহিস্কার নিয়ে নাটকীয়তা !

আল-মামুন,খাগড়াছড়ি:: পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক নজরুল ইসলাম মাসুদকে বহিস্কার নিয়ে ধুম্রজাল সৃষ্টি হয়েছে খাগড়াছড়িতে। কেন্দ্রীয় সভাপতি আব্দুল মজিদ ও সাধারণ সম্পাদক শাহাদাৎ ফরাজী সাকিব স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি নিশ্চিত করলেও এবার সামনে এসেছে নিজেদের মধ্যে অন্তকোন্দলের বিরোধের বিষয়টি।

রবিবার বিকেলে সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সম্পাদকের যৌথ স্বাক্ষরে বহিস্কারের এ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে সংগঠনটি। তবে বিষয়টি আ: মজিদের সাজানো মনগড়া নাটক ও অপপ্রচার বলে উল্লেখ করেছে একাদিক কেন্দ্রীয় নেতা। মুলত কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আব্দুল মজিদের সাথে নজরুলের বিরোধের কারণে এ বহিস্কারের ঘটনাটি ঘটেছে বলে উঠে আসে।

সম্প্রতি মোটা অঙ্কের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন করার ফলে নজরুল ইসলাম মাসুদকে অবৈধ ভাবে বহিস্কার নাটক সাজানো হয়েছে বলে অভিযোগ নজরুল সমর্থিতদের। পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদের জেলাসহ সকল পদ থেকে তাকে বহিস্কার করলেও তার ব্যাপারে কিছুই জানেনা কেন্দ্রীয় কোন নেতা। তবে আ: মজিদসহ সভাপতি/সম্পাদক প্রেরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে দু’জনের স্বাক্ষর থাকলেও পিবিসিপির কেন্দ্রীয় উপদেষ্টাসহ বেশির ভাগ নেতারই জানা নেই নজরুল ইসলামের বহিস্কারের বিষয়টি।

সংগঠনটির দু’অংশের ভাঙ্গন, অন্যদিকে নতুন করে এ বিরোধ ও বহিস্কার পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদের মধ্যে বাঙ্গালী জনগোষ্ঠির দেখা আশার আলোতে অন্ধকারে আচ্ছাদিত হয়ে আসছে বলে মন্তব্য করেন স্থানীয়রা। তবে যোগ্য ব্যক্তিদের সংগঠনে নেতৃত্বের জায়গায় এনে সংগঠনকে শক্তিশালী করে অধিকার আদায়ে এক হয়ে কাজ করা প্রয়োজন বলে মনে করেন স্থানীয়রা।

বহিস্কার এর বিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যক্তি বলেন, সংবাদ সম্মেলনের আগে কেন তার বিরুদ্ধে শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ আনা হলো না। সংবাদ সম্মেলন করার পর নজরুল ইসলাম মাসুদকে খাগড়াছড়ি জেলাসহ সকল পদ থেকে বহিস্কার করায় বিষয়টি নিয়ে জনমনে নতুন প্রশ্নে জম্ম দিয়েছে।

বহিস্কারের বিষয়ে পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় চেয়ারম্যান ও প্রতিষ্ঠাতা আলকাছ আল-মামুন ভুইয়া বলেন, নজরুল ইসলামকে বহিস্কারের বিষয়ে আমি কিছুই জানি না। যেহেতু আমি এ সংগঠনের উপদেষ্টা কেন্দ্রীয় কমিটি কোন সিদ্ধান্ত নিলে তা অবগত করাসহ বিভিন্ন বিষয় থাকলেও তা মানা হয়নি এবং বহিস্কারের বিষয়টি সংগঠনের নিয়ম পরিপন্থি ভাবে করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

রবিবার বিকেলে গণমাধ্যমকে দেওয়া এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির এক জরুরী সিদ্ধান্ত মোতাবেক তাকে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের কারণে সকল পদ থেকে বহিস্কারের কথা বলা হলেও কোথাই কখন এই বৈঠক ও সিদ্ধান্ত হয়েছে তাও উল্লেখ না করায় এ আদেশের বিষয়টি পরিকল্পিত, মনগড়া এবং নিজের স্বার্থে করার বিষয়টি স্পষ্ট হয়ে উঠেছে বলে অভিযোগ নজরুল ইসলামের।

এছাড়াও পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদের উপদেষ্টা ইসমাইল নবী শাওন বলেন, কেন্দ্রীয় কমিটির কোন সদস্যকে বহিস্কার করতে হলে অবশ্যই উপদেষ্টা কমিটির সিদ্ধান্ত লাগে। মনগড়া ভাবে কেউ বহিস্কার করলে তা কার্যকর হবে না বলে তিনি জানান।

পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদের খাগড়াছড়ি জেলা কমিটির সভাপতি লোকমান হোসেন বলেন, সংগঠনের কেউ বহিস্কার বা কারো কোন বিষয় থাকলে তা আলোচনার মাধ্যমে সর্বসম্মতিতে সিদ্ধান্ত গৃহিত হবে। এতে মনগড়া ভাবে অপপ্রচারের চেষ্টা সংগঠনের জন্য ক্ষতিকর বলে উল্লেখ করেন। এ সময় তিনি এ বহিস্কার অবৈধ বলেও জানান।

কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক শাহাদাৎ ফরাজী সাকিব এর মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে প্রথমে সংযোগ পাওয়া গেলেও কিছু সময় পর মোবাইলের সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। পরে আর সংযোগ পাওয়া যায়নি। বহিস্কারের বিষয়ে জানতে চাইলে কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আব্দুল মজিদের বিষয়টি সংগঠনের সিদ্ধান্তে হয়েছে বলে জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *