আলোচিত বাংলাদেশ চট্টগ্রাম দেশের খবর পার্বত্য চট্টগ্রাম ব্রেকিং নিউজ রাজনীতি

খাগড়াছড়িতে ছাত্রলীগকর্মী খুন,উত্তেজনা-মিছিল


আল-মামুন,খাগড়াছড়ি:: খাগড়াছড়িতে দুবৃত্তদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে  রাসেল (২০) নামের এক ছাত্রলীগ কর্মী খুন হয়েছে। শনিবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। ছাত্রলীগ নেতার মৃত্যুতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে পার্বত্য চট্টগ্রাম টাক্সফোর্স চেয়ারম্যান কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা অনুসারী। অপরদিকে মিথ্যা অভিযোগে অভিযুক্ত করায় বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে মেয়র সমর্থিত নেতাকর্মীরা।

জেলা শহরের মিলনপুর এলাকায় রাতে দুবৃত্তরা তাকে ফেলে রেখে পালিয়ে গেলে এলাকাবাসী তাকে প্রথমে খাগড়াছড়ি হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে অবস্থার অনবতি দেখে চমেকে রেফার করলে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে রাত সাড়ে ১০টায় পথেই তার মৃতু হয়।

জানা যায়, শনিবার সন্ধ্যায় মো: রাসেল কয়েকজন বন্ধুসহ মিলনপুর ব্রীজের উপর বসে আড্ডা দিচ্ছিল। এক পর্যায়ে কয়েকজন দুবৃত্ত এসে রাসেলকে এলোপাথারী কুপিয়ে পালিয়ে যায়। রবিবার নিহতের বাড়ীতে মরদেহ দেকতে যান পার্বত্য চট্টগ্রাম ট্রাক্সফোর্স চেয়ারম্যান কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা,পাজেপ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরীসহ এমপি সমর্থিত অংশের নেতাকর্মীরা ছুটে যান। সকালে হত্যাকান্ডের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিঠিল করে অংশটি।

এ ঘটনার জন্য এমপি কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা সমর্থিতরা খাগড়াছড়ি পৌর মেয়র রফিকুল আলমের নেতাকর্মীদের দায়ী করলেও তিনি তা অস্বীকার করে মেয়র রফিকুল আলম বলেন এটি তাদের নিজেদের অভ্যান্তরিন বিরোধের কারনে হয়ে থাকতে পারে। আর এ হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত যেই থাক ঘটনার সাথে দোষীদের আইনের আওতায় এনে শাস্তির দাবী জানান তিনি।

নিহত রাসেল খাগড়াছড়ি জেলা সদরের কদমতলীর হরিনাথ পাড়ার মোঃ নুর হোসেনের ছেলে। খাগড়াছড়ি সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শাহাদাত হোসেন টিটো ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অপরাধীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাক্তার নয়ন ময় ত্রিপুরা জানান, রাসেলের শরীরের বিভিন্ন জায়গায় ধারালো অস্ত্রের আঘাত ছিল। তার অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় চট্টগ্রাম মেডিকেলে কলেজ হাসপাতালে পাঠনো পথে সে মারা যায়। খাগড়াছড়ি জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি টেকো চাকমা রাসেলকে ৬নং পৌর ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সদস্য দাবী করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *