আলোচিত বাংলাদেশ চট্টগ্রাম পার্বত্য চট্টগ্রাম ব্রেকিং নিউজ

পাহাড়ে বৈসাবির আমেজ

আল-মামুন,খাগড়াছড়ি:: পার্বত্য চট্টগ্রামে ১৩ ভাষাভাষির বসবাস। বৈসাবি,বিজু,সাংগ্রাহ ও পহেলা বৈশাখ এলেই পাহাড়ের বসে আনন্দের হাট। তাইতো বৈসাবি ও বর্ষবরণকে ঘিরে তিন পার্বত্য জেলায় এখন উৎসবের আমেজ। পাড়ায় পাড়ায় নিজস্ব সংস্কৃতি চর্চাও নিজস্ব রীতিতে বর্ষবরণ ও বিদায়ে চলছে নানা প্রস্তুতি।

স্ব-স্ব কৃষ্ঠি সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যকে তুলে ধরে বিভিন্ন সম্প্রদায়ের আয়োজন করছে নানা অনুষ্ঠানমালার। বোতল নিত্য,জলকেলী,পানিতে ফুল ভাষানো,প্রদীপ প্রজ্জলন,সাংস্কৃতি অনুষ্ঠান,খেলাধুলাসহ থাকছে অসংখ্য আয়োজন। বৈসাবি ও বর্ষবরণের নানা অনুষ্ঠানের ফুলঝুঁড়ি নিয়ে খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরীর সভাপতিত্বে ১১ এপ্রিল ২০১৮ সকাল ৮টায় জেলা পরিষদ প্রাঙ্গন থেকে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন।

এতে বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মানুষের অংশ গ্রহণে বর্ণিল আয়োজনে সাথে রয়েছে, সকাল ৯টায় খাগড়াছড়ি টাউন হল প্রাঙ্গনে বিভিন্ন ঐতিহ্যবাহী খেলাধুলা,গরয়া নৃত্য ও পানি উৎসব, বিকেল সাড়ে ৪টায় বিভিন্ন সেক্টরে বিশেষ অবদানের জন্য গুণীজন সংবর্ধনা ও সন্ধ্যায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

এছাড়াও বিশেষ এই দিনে বাহারি রংএ রঙিন পোশাকে সজ্জিত হয়ে মেতে উঠবে নানা বয়সী তরুণ-তরুণীরা। সেই সাথে যুক্ত হবে বিভিন্ন বয়সের নানা শ্রেণী পেশার মানুষ। প্রতিবছর বৈসাবি উৎসব আসে নব আনন্দে পাহাড়ে বসে মিলনমেলা।
অরণ্যঘেরা তিন পার্বত্য জেলায় এ উৎসবকে বিভিন্ন নামে অভিহিত করা হয়।

চাকমারা এ উৎসবকে বিঝু, ত্রিপুরাদের ভাষায় বৈসুক, মারমাদের ভাষায় সাংগ্রাই, তংচঙ্গ্যাদের ভাষায় বিসু এবং অহমিয়াদের ভাষায় বলা হয় বিহু। তবে ত্রিপুরা, মারমা এবং চাকমা এই তিন নৃগোষ্ঠীর উৎসবের নামের আদ্যক্ষর মিলিয়ে পাহাড়িদের এই উৎসবের নামকরণ হয়েছে বৈসাবি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *