পার্বত্য চট্টগ্রাম ব্রেকিং নিউজ

কাউখালীতে আ’লীগ-বিএনপি রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে নিহত ১ , আহত-৩০, আটক ৪

নিজস্ব প্রতিবেদক: কাউখালীতে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে ঘাগড়া ইউনিয়ন বাছির উদ্দিন(৩৫) নিহত হয়েছেন। রবিবার সকাল সাড়ে ছয়টার সময় ভোট গ্রহণের আগে উপজেলা সদরের রাঙ্গীপাড়া এলাকায় সংঘর্ষের এই ঘটনা ঘটে।
কাউখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার মোহাম্মদ মিনহাজুর রহমান এবং কাউখালী থানার অফিসার ইনচার্জ মনজুরুল আলম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেছেন এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে কাউখালী উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মোতালেব মেম্বারসহ চারজনকে আটক করেছে পুলিশ।
অপরদিকে কাউখালী-রাণীরহাট সড়কের পাইন বাগান এলাকায় কাউখালী উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও কলমপতি ইউপি চেয়ারম্যান ক্যজাই মারমাকে বহনকারী মাইক্রোবাসে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে গাড়ীর গ্লাস ভাংচুর করেছে দৃষ্কৃতকারীরা। বাছির উদ্দিন হত্যাকা- সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে আটককৃতরা হলো, কাউখালী উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মোতালেব মেম্বার(৪২), মো. ওমর ফারুক (১৮), মো. শামীম (২৫), ও মো. কামলা হোসেন(৩৮)।
এ ঘটনায় কাউখালী উপজেলা সদর ও আশে পাশের এলাকা সমূহে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। সম্ভাব্য সহিংসতা এড়াতে সেনা, বিজিবি ও পুলিশী টহল জোড়দার করা হয়েছে।
কাউখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পুলিশ পাহাড়ায় চিকিৎসাধীণ কাউখালী উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মোতালেব মেম্বার সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, গত কয়েকদিন থেকে বিএনপির নেতাকর্মী ও সমর্থকদের ভোট কেন্দ্রে যেতে বারন করে আসছিলো আওয়ামী লীগ ও যুবলীগের কিছু নেতা কর্মী। গত শনিবার রাতেও কাশখালী ও রাঙ্গীপাড়া এলাকায় বিএনপি এবং অংগ সংগঠনের নেতাকর্মীদের রবিবার ভোট কেন্দ্রে যেতে বারন করে দেয়। এতে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছিলো বিএনপি ও অংগ সংগঠনের নেতাকর্মীদের মধ্যে। রবিবার ভোর আনুমানিক সাড়ে ছয়টার সময় কাশখালী এলাকায় সংবাদ ছড়িয়ে পড়ে যে তার ছেলেকে যুবলীগের কর্মীরা মারধর করছে। এ সংবাদ ছড়িয়ে পড়ার সাথে সাথে বিএনপির নেতা কর্মীদের মধ্যেও উত্তজনা সৃষ্টি হয়। তিনি অভিযোগ করেন আওয়ামী লীগের হামলায় তিনি তার স্ত্রী সন্তানসহ প্রায় দশ জন আহত হয়েছে। তবে নিরাপত্তার কারণে অনেকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়নি।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, রবিবার কাউখালীতে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির মধ্যে সংঘর্ষে আহতরা হলো। আলমগীর হোসেন(২৬), মনির হোসেন(৩৮), শহীদুল ইসলাম(২৮) , মো. হানিফ(২২), নাছির উদ্দিন(৩২), বেলাল হোসেন(২৮), মাকসুদ আলম(৩২), মো. সাজ্জাদ(৩০), শাহেদা বেগম(৪০), আব্দুল্যাহ আল মামুন(১৮), মো. ওমর ফারুক(১৮), মো. শাহীন (২৮), মো. সোহাগ (২৩), মো. সুমন (২৫), মো. সাব্বির(৩০), মো. মাসুম(২৮), আব্দুর রহমান কালু (৪৫), মো. শহিদুল(৩২), মো. শরীফ (২৩), মো. রিয়াজ(৩০), মো. সেকু (২৭)।
কাউখালী থানার অফিসার ইনচার্জ মনজুরুল আলম জানিয়েছেন, যে কোন ধরনের সহিংসতা এড়ানোর জন্য উপজেলা সদর ও আশে পাশের এলাকায় পর্যাপ্ত নিরাপত্তা জোড়দার করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *