পার্বত্য এলাকার দেশীয় জাতের গবাদি পশুর চাহিদা সারা দেশে : রেমলিয়ানা পাংখোয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক: পার্বত্য এলাকার দেশীয় জাতের গবাদি পশুর চাহিদা সারা দেশে প্রচুর রয়েছে। এই চাহিদার কথা চিন্তা করে দুর্গম এলাকায় গবাদি পশু পালনের উদ্যোগ কে আরও বেগবান করতে প্রাণী সম্পদ বিভাগের কর্মকর্তাদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য ও প্রাণী সম্পদ বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত আহবায়ক রেমলিয়ানা পাংখোয়া।
তিনি বলেন, প্রাণী সম্পদ বিভাগের মাধ্যমে দেশের অর্থনীতিতে পার্বত্য অঞ্চলের ভূমিকা রাখা সম্ভব। এই সম্ভাবনাময় খাতকে রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ কাজে লাগানোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। সেই চেষ্টা বাস্তবায়নে প্রাণী সম্পদ বিভাগের কর্মকর্তাদের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ বলেও তিনি মন্তব্য করেন।
মঙ্গলবার (৫ ফেব্রুয়ারি) সকালে রাঙ্গামাটি জেলা প্রাণী সম্পদ বিভাগে রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদের অর্থায়নে ১০ উপজেলার প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তাদের হাতে গবাদি পশু ও হাঁস মুরগীর ঔষধ বিতরণকালে তিনি এ কথা বলেন।
জেলা পরিষদ সদস্য রেমলিয়ানা পাংখোয়া বলেন, প্রান্তিক এলাকায় খামার শিল্পের উন্নয়নে পরিষদের অর্থায়নে এ ওষুধগুলো বিতরণ করছে। প্রকৃত খামারীরা যাতে ওষুধগুলো যথাযথভাবে গবাদী পশু পাখির জন্য ব্যবহার করে তাদের অর্থনৈতিক উন্নতি ঘঠাতে পারে। খামারীদের সু পরামর্শ প্রদানে তিনি উপজেলা প্রাণীসম্পদ দফতরের ভেটেরিনারী ও সকল কর্মকর্তাদের আহ্বান জানান।
এ সময় রাঙ্গামাটি জেলা প্রাণীসম্পদ কর্মকর্তা মনোরঞ্জন ধর, জেলা প্রাণীসম্পদ দপ্তরের ভেটেরিনারি সার্জন ডা: দেবরাজ চাকমা, প্রাণীসম্পদ দফতরের কর্মকর্তা রতন কুমার দেসহ বিভিন্ন উপজেলার প্রাণীসম্পদ দফতরের ভেটেরিনারি সার্জনগণ উপস্থিত ছিলেন।
পরে রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদ সদস্য ও প্রাণীসম্পদ বিভাগের দায়িত্ব প্রাপ্ত আহবায়ক রেমলিয়ানা পাংখোয়া ১০ উপজেলার প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তাদের হাতে ঔষধ তুলে দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *