খাগড়াছড়িতে ডেঙ্গু নিয়ে শঙ্কা-আতঙ্ক:১১ দিয়ে আক্রান্ত ৪০

আল-মামুন,খাগড়াছড়ি:: খাগড়াছড়িতে ১১ দিনে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে চল্লিশে। ফলে ক্রমশ ডেঙ্গু নিয়ে শঙ্কা আর আতঙ্ক বাড়ছে স্থানীয়দের মাঝে। এদিকে কোনবানীর ঈদের ছুটিতে বাহিরের জেলা থেকে আগত রোগিদের মাধ্যমে ব্যাপক হারে ডেঙ্গু ছড়ানোর শঙ্কা প্রকাশ করছে স্থানীয়রা।

আক্রান্তদের বেশির ভাগ ঢাকায় আগত হলেও ইতিমধ্যে খাগড়াছড়ির স্থানীয়দের মধ্যেও ছড়িয়ে পড়তে শুরু করেছে এ রোগ। তবে ডেঙ্গু মোকাবেলায় ইতিমধ্যে খাগড়াছড়ি আধুনিক সদর হাসপাতালে মনিটরিং সেল গঠন করা হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে ডেঙ্গু শনাক্তের কীট পৌছলেও বিভিন্ন ডায়াগনিস্টিক সেন্টার মুখী হয়ে পড়েছেন রোগীরা।

সূত্র মতে, গত ১১ দিনে খাগড়াছড়ি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে মোট ৪০জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী। তাদের মধ্যে ১২ জন ভালো হয়ে বাড়ী ফিরেছে। বর্তমানে হাসপাতালে ভর্তি আছে ২৫ জন। আসুস্থদের মধ্যে আশঙ্কাজনক ১ রোগিকে চট্টগ্রামে রেফার করা হয়েছে। তার মধ্যে ১১জন রোগি স্থানীয় বলে জানিয়েছেন খাগড়াছড়ির আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডা.নয়নময় ত্রিপরা। হাসপাতালে ভর্তি রোগিদের নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। ডেঙ্গডেঙ্গডেঙ্গডেঙ্গডেঙ্গ

খাগড়াছড়ির আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডা.নয়নময় ত্রিপরা আরো জানান, অন্য জেলার তুলনায় খাগড়াছড়িতে ডেঙ্গুর প্রভাব কম। তবে যারা আক্রান্ত হচ্ছে তারা বাহিরের জেলা থেকে আক্রান্ত হয়ে আসছে। ডেঙ্গুতে আতঙ্কিত হওয়া কিছু নেই। প্রতিরোধে জনসচেতনতা প্রয়োজন বলে তিনি মন্তব্য করেন।

এদিকে বৃহস্পতিবার খাগড়াছড়ির সদর হাসপাতালে ডেঙ্গু শনাক্তের ১২০টি কীট পৌছেছে বলে জানা গেছে। সরকারিভাবে প্রাপ্ত এসব কীটের মাধ্যমে হাসপাতালে ডেঙ্গুরোগ শনাক্ত করা ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া গেলে খাগড়াছড়িতে এখনো ডেঙ্গু বড় ধরনের কোন প্রভাব ফেলতে পারবে না বলে তিনি জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *