Home » পার্বত্য চট্টগ্রাম » খাগড়াছড়ির নিউজিল্যান্ড সড়ক যান চলাচলের অযোগ্য

খাগড়াছড়ির নিউজিল্যান্ড সড়ক যান চলাচলের অযোগ্য

নিজস্ব প্রতিবেদক, খাগড়াছড়ি :: খাগড়াছড়ি নিউজিল্যান্ড সড়কটির যান চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে। যত্রতত্র ভাঙ্গার কারণে ঘটছে র্দুঘটনা । সেই সাথে প্রাণহানির মতো ঘটনাও ঘটছে। খাগড়াছড়ি পৌর শহর থেকে দেড় কিলোমিটার র্পূবে পানখাইয়া পাড়া – আপার পেরাছড়া গ্রামের মাঝখানে নিউজিল্যান্ড সড়ক।

প্রতিনিয়ত অতিরিক্তি বালি, ইট, কংক্রীট ও মাটি বোঝাই ট্রাক্টর চলাচলের কারণে রাস্তার ঢালাই উঠে বেহাল দশায় সড়কটি। ফলে সাধারনের জন্য ব্যাটারী চালিত টমটম, মোটর সাইকেল, রিক্সার মতো কোনো যানবাহন চলাচল করতেও নারাজ। সড়কটির বেহাল দশার প্রভাব পড়েছে র্পযটকদের উপরও। প্রাকৃতিক নৈর্সগিক সৌর্ন্দযে খাগড়াছড়ি প্রতিনিয়ত হাজার হাজার র্পযটক ভীর করে। কিন্তু যাতায়াত ব্যবস্থার কারণে দিন দিন এর সংখ্যা কমে আসছে।
খাগড়াছড়ি শহরের একমাত্র সমতল ভূমি হলো এই নিউজিল্যান্ড। সবুজ ধানক্ষেত এবং পাহাড়ে পরিবেষ্ঠিত এখানকার প্রাকৃতিক সৌর্ন্দয এক কথায় নজরকাড়া। পাহাড়ি এলাকায় খাগড়াছড়ির সবুজ এই সমভূমিকে তার নান্দনিক সৌর্ন্দযের কারণে এমনতর নামকরণ করা হয়েছে। এর মাঝখান দিয়ে চলে যাওয়া রাস্তাটির নাম নিউজিল্যান্ড সড়ক।
নিউজিল্যান্ড পাড়ার বসবাসরত খালেক বলেন, ‘এই সড়কটি ভেঙে নষ্ট হওয়ার কারনে যাতায়াতে সমস্যা হয়। কোনো যানবাহন এই সড়কটিতে চলতে চায় না।’ খাগড়াছড়ি জেলা স্বাস্থ্য র্কমর্কতা রত্ন জ্যোতি চাকমা বলেন, ‘এই সড়কটি যানবাহন চলাচলে অযোগ্য হওয়াতে স্কুল-কলেজে অধ্যয়নরত ছাত্র-ছাত্রীদের এবং বিভিন্ন অফিসে র্কমরত চাকুরীজীবিদের যথাসময়ে পৌঁছাতে সমস্যা হচ্ছে। রাস্তায় কংক্রীট উঠে যাওয়ায়, ধূলাবালির সৃষ্টি হয়, ফলে স্বাস্থ্য খুকিও বাড়ছে।
আপার পেরাছড়া গ্রামের এনজিও র্কমী সলিতা চাকমা বলনে, ‘এই রাস্তা দিয়ে আপার পেরাছড়া, কমলছড়ি, ভূয়াছড়ি, বেতছড়ি, জামতলী পাড়া, আনন্দনগর, পানখাইয়াপাড়া, মধুপুর, মলিনপুর, কল্যাণপুর গ্রামের লোকজন যাতায়াত করে। এ ছাড়াও বিভিন্ন জরুরী প্রয়োজনে, সরকারী হাসপাতালে, আদিবাসীদের মধুপুর বাজার ও পুলিশ স্টেশনে যেতে চাইলে অন্যরাস্তা দিয়ে ঘুরে যেতে হচ্ছে ।
স্থানীয় আদিবাসীদের তথ্যমতে, জানুয়ারি ২০১৭ সালে ১৫ সদস্যের একটি যুবক-যুবতী দল গণস্বাক্ষর নেওয়া শুরু করেছিল এই সড়কটির দুপাশের সবুজ ফসলের মাঠ, র্সূযাস্ত এবং অর্পূব সবুজ সৌর্ন্দযের জন্য যেন নিউজিল্যান্ড সড়কটিকে র্পাক হিসাবে ঘোষণা করা হয়।

About admin

Leave a Reply