পার্বত্য শান্তি চুক্তির ২২ বর্ষপূর্তি আজ


নুরুল আলম:: পার্বত্য শান্তি চুক্তির ২২ বছর পূর্তি আজ। পাহাড়ের সংঘাতপূর্ণ পরিস্থিতির অবসান ঘটিয়ে ১৯৯৭ সালের এই দিনে সরকার এবং জনসংহতি সমিতির মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। দীর্ঘ সময়ে পাহাড়ে উন্নয়নমূলক কাজ হলেও চুক্তির অমীমাংসিত বিষয়গুলো এখনও সুরাহা না হওয়ায় হতাশা প্রকাশ করেছেন উপজাতীয় একটি মহল। সরকার সমর্থিতদের দাবী চুক্তির অধিকাংশ বাস্তবায়ন হয়েছে।

পাহাড়ে প্রায় দু‘যুগের বেশি সময় ধরে সশস্ত্র আন্দোলন চলার পর ১৯৯৭ সালে ২রা ডিসেম্বর তৎকালীন সরকারের সাথে শান্তিচুক্তি হয় চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির। তারই ধারাবাহিকতায় ১৯৯৮ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি খাগড়াছড়িতে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আনুষ্ঠনিকভাবে অস্ত্র সমর্পণ করেন সন্তু লারমাসহ ১হাজার ৯শ ৬৮ জন শান্তিবাহিনীর সদস্য।

উপজাতীদের অধিকার আদায়ের লক্ষে সরকারের সাথে চুক্তি হলেও দুই দশক পরও চুক্তি বাস্তবায়ন হচ্ছেনা দাবি করে ক্ষোভ প্রকাশ করেন উপজাতীরা। চুক্তি বিরোধী উপজাতীয় সংগঠন ইউপিডিএফ এর একাংশের অভিযোগ, চুক্তি বাস্তবায়নে সরকারের আগ্রহ কম।

তবে এ চুক্তির পক্ষে সরকার সমর্থকদের দাবি ধারাবাহিকভাবে চুক্তি বাস্তবায়িত হবে। আর স্থানীয়দের দাবি, পরিপূর্ণ চুক্তি বাস্তবায়নের মধ্যদিয়ে পাহাড়ে স্থায়ী শান্তি প্রতিষ্ঠা করা হোক। এদিকে দিনটি ঘিরে খাগড়াছড়ি ও গুইমারা রিজিয়নের আওতাধীন সকল জোন শান্তি চুক্তির ২২ বছর পূর্তিতে নানা আয়োজনের মধ্যে দিয়ে উৎসবমুখর পরিবেশে দিনটি পালন করছে। অন্যদিকে খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের উদ্যোগেও নানা কর্মসূচির আয়োজন করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *