শান্তিচুক্তির ফলে ভ্রাতৃত্বের বন্ধনে ঐক্যবদ্ধ হয়েছে সকল সম্প্রদায়

নুরুল আলম:: খাগড়াছড়ির গুইমরায় “পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তিচুক্তির ২২ বর্ষপূর্তি” উদযাপন করা হয়েছে। সোমবার সকালে গুইমারা মডেল হাই স্কুল মাঠ থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি উপজেলার প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে গুইমারা রিজিয়ন মাঠে এসে শেষ হয়। পরে আলোচনা সভা ও শান্তি চুক্তির উপর বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়া প্রতিযোগিদের মাঝে পুরস্কার বিতরন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন, গুইমারা রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ শাহরিয়ার জামান এএফডব্লিউসি পিএসসি,জি।

এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন, গুইমারা সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল আব্দুল হাই পিএসসি,জি, সিন্দুকছড়ি জোন কমান্ডার লে. কর্ণেল রুবায়েত মাহমুদ হাসিব পিএসসি জি, যামিনি পাড়া জোন কমান্ডার মোঃ মিজানুর রহমান পিএসসি জি, মানিকছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীন, গুইমারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তুষার আহমেদ, গুইমারা ইউপি চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মেমং মারমা, হাফছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান চাইথোয়াই চৌধুরী,গুইমারা কলেজ অধ্যাক্ষ নাজিম উদ্দীন প্রমুখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ শাহরিয়ার জামান বলেন, পার্বত্য চুক্তির ফলে এ জনপদের মানুষ মিলেমিশে রয়েছে বলেই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রয়েছে। পার্বত্য শান্তিচুক্তির ফলে সকল সম্প্রদায় ভ্রাতৃত্বের বন্ধনে একত্রিত হতে পেরেছে। সকলের সহযোগিতা থাকলে ভবিষ্যতে পাহাড়ে শান্তি বিরাজমান থাকবে। অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরষ্কার বিতরন ও অতিথিরা বক্তব্য রাখেন। পরে অতিথিরা অতিথি মেলায় বিভিন্ন স্টল পরিদর্শন করেন। এছাড়াও বিকেলে মনোজ্ঞ সম্প্রীতি কনসার্টের আয়োজন করা হয়েছে। এতে চট্টগ্রাম ও স্থানীয় জনপ্রিয় শিল্পীরা মঞ্চ মাতাবে।

প্রসঙ্গত: পার্বত্য চট্টগ্রামে দীর্ঘদিন ধরে চলমান রক্তপাত ও সংঘাত নিরসনে ১৯৯৭ সালের ২ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আন্তরিক উদ্যোগে স্বাক্ষরিত হয় ঐতিহাসিক পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তি চুক্তি। সরকারের পক্ষে সে সময়ে জাতীয় সংসদের চিফ হুইপ আবুল হাসনাত আব্দুল্লাহ এবং জনসংহতি সমিতির পক্ষে (জেএসএস সভাপতি) জ্যোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় লারমা (সন্তু লারমা) পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তি চুক্তি স্বাক্ষর করেন। শান্তিপূর্ণভাবে বিরোধ নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে সারাবিশ্বে একটি অনন্য দৃষ্টান্ত হিসাবে এ চুক্তি তৃতীয় কোনো পক্ষের মধ্যস্থতা ছাড়াই স্বাক্ষরিত হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *