খাগড়াছড়ি-দীঘিনালা সড়কে উদ্ধার হওয়া লাশটির পরিচয় পাওয়া গেছে

Untitled-1নুরুল আলম: খাগড়াছড়ি-দীঘিনালা সড়কের চার মাইল যৌথ খামার এলাকা থেকে উদ্বার হওয়া লাশটির পরিচয় পাওয়া গেছে। সে রাঙামাটির লংগদু উপজেলার বাইট্টাপাড়ার মৃত্যু ফয়েজ উদ্দিনের পুত্র মো. নুরুল ইসলাম নয়ন (৩৫)। তিনি দুই কন্যা ও এক পুত্র সন্তানের জনক। দীর্ঘদিন থেকে ভাড়ায় চালিত মাহেন্দ্র গাড়ির লাইনম্যান হিসেবে বাইট্টাপাড়ায় কর্মরত ছিলেন। তবে গত সপ্তাহ খানিক আগে লাইনম্যান ছেড়ে দিয়ে ভাড়ায় মোটরসাইকেল চালনো শুরুকরে।

নিহতের ছোটভাই দীনইসলাম লিটন রাত ৮টার দিকে খাগড়াছড়ি অাধুনিক সদর হাসপাতালে উপস্থিত হয়ে নুরুল ইসলাম নয়নের লাশ সনাক্ত করেন। এসময় তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার খুব ভোরে বাসা থেকে বের হয়েছেন তার ভাই। বের হওয়ার সময় তিনি জানিয়েছিলেন যাত্রী নিয়ে খাগড়াছড়ি আসবেন। কিন্তু কাদের নিয়ে এসেছে তা বলেননি।
খাগড়াছড়ি দীঘিনালা সড়কের মাহেন্দ্র চালক মো. জামাল উদ্দিন জানান, তিনি খাগড়াছড়ি আসার পথে সাড়ে এগারটার দিকে পুলিশ লাইনের সামনে ব্রিজের পাশের দোকানের সামনে দাড়ানো দেখেছিলেন। এসময় নুরুল ইসলাম নয়ন তাকে জানিয়েছিলো  ভাড়া নিয়ে খাগড়াছড়ি এসেছিলেন, এখন লংগদু চলে যাচ্ছেন। তবে তিনি সঙ্গে কাওকে দেখেননি।
খাগড়াছড়ি অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এম এম সালাহউদ্দিন জানান, নিহতের লাশ তার ছোট ভাই এসে সনাক্ত করেছে। সে বাদী হয়ে অজ্ঞাতদের নামে হত্যা মামলা দায়ের করবে। তবে হত্যার বিষয়টি নিয়ে তদন্ত শুরুকরা হয়েছে। তার ব্যবহৃত মোবাইল, মোটরসাইকেল এখনো পাওয়া যায়নি। সুরতহাল রিপোর্ট পেলে জানা যাবে কিভাবে হত্যা করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *