খাগড়াছড়িতে মানববন্ধনে বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষ

আল-মামুন,খাগড়াছড়ি:: মায়ানমারে রোহিঙ্গা গণহত্যা,নির্যাতন বন্ধ ও পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে আশ্রয় দেওয়ার দাবীতে খাগড়াছড়ি জেলা বিএনপি আয়োজিত মানববন্ধনে বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় বিএনপির প্রায় ২৬ নেতাকর্মী আহত হয়েছে বলে দাবী করেছে বিএনপি। এ ঘটনায় ৫ পুলিশ আহত হয়েছে বলে জানা গেছে।

শুক্রবার সকাল ১০টায় খাগড়াছড়ি প্রেস ক্লাবের সামনে আয়োজিত মানববন্ধনের স্থান নির্ধারিত থাকলেও পুলিশী তাৎক্ষনিক ভাবে ভাঙ্গাব্রীজ এলাকায় মানববন্ধন করতে নির্দেশ দেয়। পরে তা ভাঙ্গাব্রীজ এলাকার আদালত সড়কে শুরু হলে অনুষ্ঠানের ব্যানার ও আগত নেতাকর্মীদের ব্যারিকেটের মধ্যে রাখাকে পুলিশ ও বিএনপি নেতাকর্মীদের মধ্যে বাক-বিতন্ডা বাদে। এক পর্যায়ে তা পুলিশ-বিএনপি নেতাকর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষে রূপ নেয়।

এ সময় দু’পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। বিএনপি নেতাকর্মীদের পুলিশ লাঠি চার্জ ও ধাওয়া করলে জবাবে বিএনপি নেতাকর্মীরা পুলিশকে লক্ষ করে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে।

এ সময় খাগড়াছড়ি জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি প্রবীণ চন্দ্র চাকমা,সাংগঠনিক সম্পাদক ও পৌর বিএনপির সভাপতি আ:রব রাজা,ভারপ্রাপ্ত দপ্তর সম্পাদক আবু তালেব,পৌর ছাত্র দলের আমির খান,জেলা ছাত্রদলের সোহেল,স্বেচ্ছাসেবক দলের সেলিম খানসহ প্রায় ২৬ বিএনপি নেতাকর্মী আহত হয়েছে বলে জানান। এ সময় দায়িত্ব পালন করতে আসা ৫ পুলিশ সদস্য আহত হয় বলে জানা যায়।

বিএনপির পক্ষ থেকে এ ঘটনাকে অমানবিক উল্লেখ করে জানান, মানবিক একটি মানববন্ধনে পুলিশের হামলা শুধু নেক্কার জনকই নয় এটি নিন্দনীয়। এ পুলিশী হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে এ ধরনের ঘটনা থেকে পুলিশকে বিরত থাকতে অনুরোধ জানান খাগড়াছড়ি জেলা বিএনপি।

খাগড়াছড়ি সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তারেক মো: আব্দুল হান্নান বলেন, সাধারণ মানুষের চলাচল রাস্তার স্বচল রাখতে শৃঙ্খলার মধ্যে রাখার চেষ্টা করলে বিএনপির নেতাকর্মীরা পুলিশের উপর ক্ষীপ্ত হয়। এক পর্যায়ে তারা পুলিশের উপর হামলা চালায় বলে তিনি জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *