দৃষ্টি প্রতিবন্ধীকে কুপিয়ে হত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক:: খাগড়াছড়ির দীঘিনালায় দৃষ্টি প্রতিবন্ধী এক মহিলাকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্ততারা। নিহত দৃষ্টি প্রতিবন্ধী মহিলার নাম মরিয়ম বেগম (৬০) উপজেলার মেরুং ইউনিয়নের সোবহানপুর ২নং কলোনি মৃত সামসুদ্দীন স্ত্রী বলে জানা যায়। ঘটনার পর খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করেছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে দীঘিনালা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) উত্তম চন্দ্র দেব জানান, নিহতের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। বিষয়টি খোঁজ খবর নেওয়া হচ্ছে। জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে তিনি জানান।

স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, দীঘিনালা উপজেলার মেরুং ইউনিয়নের সোবহানপুর ২নং কলোনি গ্রামে নিজ ঘরে একাই থাকতেন দৃষ্টি প্রতিবন্ধী মরিয়ম বেগম। শুক্রবার(০৫মে) সকালে যেকোন সময় একা পেয়ে কে বা কাহারা তাকে কোপিয়ে হত্যা করে। এ সময় ঘরের সুকেজ এর ড্রয়ার এবং গ্লাস ভাঙ্গা পাওয়া যায়।

সুকেজের কাপড় চোপরও এলোমেলো দেখা যায়। শুক্রবার সকালে প্রতিবেশী লেবু মিয়ার ছেলে হানিফ মিয়া ঘরে গিয়ে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী মরিয়ম বেগমের রক্তাক্ত লাশ পড়ে থাকতে দেখে প্রতিবেশীদের জানান। এসময় সে উপুড় হয়ে পড়ে ছিল। তার শরীরের কয়েক জায়গায় ধারা অস্ত্রের আঘাতের চিহৃ রয়েছে।

এ ব্যাপারে নিহত মরিয়ম বেগমের মেয়ে মাহফুজা বেগম (৪০) জানান, আমার মায়ের নিকট গ্রামের অনেকেই টাকা জমা রাখে। গত দু মাস আগেও একবার সুকেজ ভেঙ্গে টাকা চুরির ঘটনা ঘটেছিলো। মেয়ে জামাই রফিকুল ইসলাম জানান, আমরা পার্শ্ববর্তী গ্রামে থাকি। সকালে হত্যার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *