সন্দেহ প্রবণতা ও পরোচনায় রিন্টু-চন্দ্রিকার সংসারে আগুন

মিথ্যা অভিযোগে মোটা অঙ্কের অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার চেষ্টার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক,খাগড়াছড়ি:: স্ত্রীকে মারধর,যৌতুক দাবী, হত্যার চেষ্টাসহ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রিন্টু বিকাশ চাকমার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ মিথ্যা ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত উল্লেখ করে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা জানান,প্রেমের সন্দেহ প্রবণতা থেকে মিথ্যা মনগড়া অভিযোগ করে উদ্দেশ্য হাসিলের চেষ্টা করছে চন্দ্রিকা চাকমা। এটি বর্তমানে তার অভ্যাসে পরিণত হয়ে উঠেছে বলেও মন্তব্য তাদের।

এ সময় রিন্টুর সম্মানহানীসহ লোভের বসে পরোচনার শিকার হয়ে চন্দ্রিকা মোটা অঙ্কের অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার মিশনে নেমেছে বলে অভিযোগ করেন তার স্বামী রিন্টু চাকমা। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা আরো জানান, চন্দ্রিকা ও তার স্বজনদের অভিযোগে বার বার বৈঠকের পর চন্দ্রিকার নিজের অপরাধের বিষয়গুলো সামনে আসতে শুরু করে।

ইচ্ছাকৃত ভাবে চন্দ্রিকা চাকমার নিজে গুইমারায় শশুরালয়ের বাড়ির পাশে থাকা ভাড়া বাসায় নিজের গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন লাগিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টার নাটক সাজানো,ঔষধ খেয়ে আত্মহত্যার প্রবণতা ও শশুর-শশুড়ির সাথে একই পরিবারে বসবাস না করে স্বামীকে আলাদা থাকতে চাপ-সৃষ্টি করে অশান্তি সৃষ্টি অভিযোগ করেন প্রতিবেশীরাও।

এ সময় হাফছড়ি ইউনিয়ন পরিষদের ৫নং ওয়ার্ড মেম্বার সুইমং মারমা বলেন, সম্প্রতিকালে রিন্টুর বিরুদ্ধে করা অভিযোগ সম্পুন্ন মিথ্যা। কারো সাথে কথা বললেই রিন্টুর স্ত্রী তার সাথে রিন্টুর প্রেমের সম্পর্ক আছে এমন সন্দেহ প্রবণতা থেকে সংসারে অশান্তি সৃষ্টি করে চন্দ্রিকা। বর্তমানে সে একের পর এক মিথ্যা অভিযোগের আশ্রয় নিচ্ছে। সামাজিক ভাবে রিন্টুর পরিবার সম্মানীয় এবং ভদ্র বলে তারা জানান।

হাফছড়ি ইউনিয়ন পরিষদের মহিলা সংরক্ষিত ৪,৫,৬ নং ওয়ার্ড মেম্বার হ্লামােপ্রু মারমা জানান, রিন্টু ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে অনিত অভিযোগ সম্পূর্ণ বানোয়াট। এছাড়াও চাকমা সম্প্রদায়ে যৌতকের কোন প্রথা নেই। নিজের আত্মহত্যার নাটকের আড়ালে মিথ্যা অভিযোগ আনার কৌশলসহ চন্দ্রিকা উগ্র মেজাজি স্বভাবের বলে অভিযোগ করেন তিনি।

আমতলীপাড়া মৌজার মহিলা কার্বারী ম্রাপ্রু মারমাও একই মন্তব্য করে বলেন, সংসার মানে মিলেমিশে সুখের জন্য কাজ করা। অথচ চন্দ্রিকা উগ্র মানসিকতার। নিজের ইচ্ছেমত সমাজ অবমাননা করে চলতে অভ্যস্থ সে। তাই চন্দ্রিকা নিজের খেয়াল খুশিমত মিথ্যা অভিযোগ এনে নিজের ফায়দা লুটার চেষ্টা করছে বলে মনে করেন তিনি।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট (বর্তমানে জনপ্রশাসন মন্ত্রনালয়ে সহকারী সচিব) রিন্টু বিকাশ চাকমা জানান, যাকে ভালোবেসে সুখের আশায় ঘর বেধেও দীর্ঘ সময়েও সে কাঙ্খিত সুখ আসেনি তাদের সংসারে। চন্দ্রিকার তার কয়েকজন নিকট আত্মীয়র পরোচণায় মনগড়া ভিত্তিহীন অভিযোগ তুলে মোটা অঙ্কের অর্থ আদায়ে নতুন কৌশল করছে। সে ২০১৪ সালের ৩ জানুয়ারী নিজের গায়ে আগুন দিয়ে একটি নাটক তৈরী করাসহ বিভিন্ন ধরনের ভয়-ভীতি,আতঙ্ক সৃষ্টির অভিযোগ করেন তিনি। মুলত গল্প সাজাতে মিথ্যা মারধর,হত্যার চেষ্টা, যৌতুক দাবী ও নারী নির্যাতনের মিথ্যা অভিযোগে মামলা করে মোটা অঙ্কের অর্থ হাতিয়ে নেওয়াই তার মুল লক্ষ বলে অভিযোগ আনেন তিনি।

সে সাথে চন্দ্রিকা চাকমা উদ্দেশ্য প্রণোদিত ভাবে কাল্পনিক ঘটনার রূপ দেওয়ার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে জানিয়ে মিথ্যা অভিযোগের বিষয়ে সুষ্ঠ তদন্ত করে সম্মানহানি ও ঘটনার সুষ্ঠ বিচার দাবী করেন রিন্টু বিকাশ চাকমা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *