Uncategorized আন্তর্জাতিক উন্নয়নমূলক খাগড়াছড়ি গুইমারা চট্টগ্রাম দিঘিনালা পানছড়ি পার্বত্য চট্টগ্রাম ব্রেকিং নিউজ মহালছড়ি মাটিরাঙ্গা মানিকছড়ি রাজনীতি রামগর লক্ষীছড়ি

কে হচ্ছেন মাটিরাঙ্গা পৌর মেয়র, এ নিয়ে জল্পনা কল্পনা।

নুরুল আলম: কে হচ্ছেন পৌর মেয়র। এ নিয়ে জল্পনা কল্পনা, আগামী ১৪ ই ফেব্রুয়ারী মাটিরাঙ্গা পৌরসভা নির্বাচন। বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের নৌকা প্রতীকে প্রার্থী বর্তমান মেয়র শামছুল হক, (বিএনপি) প্রার্থী ধানের শীষ প্রতীকে শাহজালাল কাজল, মোবাইল প্রতীকে প্রার্থী হয়েছেন এম এম জাহাঙ্গীর আলম স্বতন্ত্র প্রার্থী।
এলাকা বাসী মনে করেন, মাটিরাঙ্গা পৌর এলাকা বিএনপির ভোট ব্যাংক, স্বাভাবিক কারনেই বিএনপি প্রার্থী শাহজালাল কাজল ভোট যুদ্ধে এগিয়ে থাকার কথা, বি.এন.পির আর দুজন হেভিওয়েট নেতা বাদশা মিয়া ও নাছির আহাম্মেদ চৌধুরী। নাছির আহাম্মেদ চৌধুরী সাবেক মেয়র, এবং বাদশা মিয়া ছিলেন সাবেক পেনেল মেয়র। সাবেক এই দুই মেয়রের রয়েছে ব্যাপক জনপ্রিয়তা, এই দুজনের অবস্থানের উপর নির্ভর করে আগামী দিনে বিএনপি প্রার্থী জয়ী করবে নাকি অন্য প্রার্থী। খাগড়াছড়ি জেলা বিএনপি সাবেক এমপি ওয়াদুদ ভুইয়া মাটিরাঙ্গায় নির্বাচনী প্রচারনায় ভোটারদের কাছে গিয়ে বিএনপির পার্থীর শাহাজালাল কাজলের পক্ষে ধানের র্শীষে ভোট দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন। ভোটারদের মতে ভোটারেরা নিজ পছন্দের প্রার্থীদেরকে ভোট দিতে পারলে নিঃসন্দেহে জয়যুক্ত হবেন বলে মনে করেন। অপর দিকে আওয়ামী লীগ প্রার্থী শামছুল হক ২বার উপজেলা চেয়ারম্যান ছাড়াও ২বার গোমতি ইউপি চেয়ারম্যান ছিলেন এবং বর্তমানে তিনি মাটিরাঙ্গা পৌর মেয়র। তার বাড়ী যদিও গোমতিতে তিনি গত নির্বাচনের আগে মাটিরাঙ্গা পৌরসভার ভোটার হিসেবে নিবন্ধিত হয়েছেন। তিনি এই নির্বাচনে একজন প্রার্থী। এম এম জাহাঙ্গীর আলম একজন উচ্চশিক্ষিত তরুন রাজনিতীবীদ। তার বাড়ী মাটিরাঙ্গা পৌরসভার চৌধুরী পাড়ায়। তিনি বাংলাদেশ আওয়ামিলীগের মাটিরাংগা পৌরসভার সাবেক সভাপতি। তবে শেষ পর্যন্ত মাটিরাঙ্গার ভোটার গণই সিদ্ধান্ত নিবেন তাদের ভোটাধীকার প্রয়োগের মাধ্যমে কে হতে যাচ্ছেন মাটিরাংগা পৌরসভার মেয়র। এছাড়াও চল্লিশ জন মহিলা সংরিক্ষত প্রার্থী। ১.২.৩নং ওয়ার্ড সাহেদা আক্তার (আনারস) ১.২.৩নং ওয়ার্ড মায়না আক্তার (চশমা) ৪.৫.৬নং ওয়ার্ড খাদিজা বেগম (চশমা) ১.২.৩নং ওয়ার্ড মনোয়ারা বেগম (টেলিফোন) ১.২.৩নং ওয়ার্ড আনেউ চৌধুরী নয়ন, (আনারাস) জয়নব বিবি ৭.৮.৯নং ওয়ার্ড কিন্তু জয়নব বিবির, কোন প্রতিদ্বন্ধী না থাকায় তাকে নির্বাচন কমিশন বিজয়ী ঘোষনা করেন। অন্যান্য প্রার্থীরা হচ্ছে, ১নং ওয়ার্ড মোঃ হানিফ সুমন (ব্ল্যাক বোর্ড) এমরান হোসেন (ডালিম), মোঃ সাইফুল ইসলাম (উটপাখি), মোঃ জামাল হোসেন (টেবিল ল্যাম্প) আঃ আজিজ (পাঞ্জাবি) ২নং ওয়ার্ড মোহাম্মদ আলী (উটপাখি), খোরশেদ আলম সুমন (পাঞ্জাবি), ৩নং ওয়ার্ড মো: আব্দুল হাকিম (ডালিম), মো: আলা উদ্দিন (লিটন) (পাঞ্জাবি), কামাল হোসেন (উটপাখি), সাইফুল ইসলাম (পানির বোতল), ৪নং ওয়ার্ড মো: মোস্তফা (ডালিম), মো: আলমগীর হোসেন (উটপাখি), মো: জালাল মিয়া (টেবিল ল্যাম্প) মো: বাবুল হাওলাদার (পাঞ্জাবি) মো: হাবিবুর রহমান (ব্ল্যাক বোর্ড) মো: নুরুল ইসলাম (ঢেঁড়শ), ৫নং ওয়ার্ড আব্দুল হামিদ (ডালিম) মো: আলী মিয়া (টেবিল ল্যাম্প) মো: রফিকুল হাসান (উটপাখি) ৬নং ওয়ার্ড হিমেল চাকমা (ডালিম) মো: আবু বক্কর সিদ্দিক টেবিল ল্যাম্প) সুমন দে (পাঞ্জাবি) মো: শহিদুল ইসলাম (উটপাখি) ৭নং ওয়ার্ড মো: হারুন মিয়া (ডালিম) আলী হায়দার ভূঁইয়া (পাঞ্জাবি) মো: ওমর ফারুক (উটপাখি) মিজানুর রহমান (খোকন) (টেবিল ল্যাম্প) ৮নং ওয়াডং মো: ওয়ালী উল্লাহ (অলি) (ব্ল্যাক বোর্ড) মো: তফিকুল ইসলাম, (ব্রিজ) মো: এস কে আলী (পানির বোতল) সোহেল রানা (ডালিম) মো: আলী হাসান (নয়ন) (টেবিল ল্যাম্প) মো: নজরুল ইসলাম ভূইয়া (উটপাখি) মো: হিরন তালুকদার (পাঞ্জাবি) ৯নং ওয়ার্ড মো: মো: অহিদুল ইসলাম (উটপাখি) সফিকুর রহমান (ব্ল্যাক বোর্ড) মো: সোহেল আফজাল (পাঞ্জাবি) মো: জালাল মজুমদার (ডালিম) মো: মাহবুব-ই- রাব্বানী (টেবিল) মার্কায় এলাকায় গিয়ে নিজ নিজ প্রতীকের ভোট দেওয়ার আহব্বান করছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *